আজও ওসি মোয়াজ্জেম গ্রেফতার হয়নি

Comments

ফেনীর ফুলগাজি থানায় মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির জবানবন্দির ভিডিওধারণ ও তা অনলাইনে ছেড়ে দেওয়ার ঘটনায় সাইবার অপরাধ আইনে মামলায় ফুল্গাজি থানায় তৎকালীন ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনের বিরুদ্ধে ২৭ মে, ২০১৯, গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে আদালত। এর ২০ দিনেও ওসি মোয়াজ্জেম গ্রেফতার হয়নি। পুলিশ বলছে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যহত রয়েছে।

সোনাগাজী থানার সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোয়াজ্জেম হোসেন দেশেই আছেন মন্তব্য করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছিলেন, ‘সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম দেশেই আছেন, পালিয়ে যাওয়ার সব পথ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। যেকোনও সময় তিনি গ্রেফতার হবেন।’ বুধবার, ১২ জুন, ২০১৯, সকালে রাজধানীর বকশিবাজারের কারা অধিদফতরে এক অনুষ্ঠান উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

ফেনীর সোনাগাজী পুলিশ সূত্র এর আগে জানিয়েছিল, রাজধানীতে ১০ জুন থেকে থেকে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। বুধবারেও তিন জায়গায় অভিযান চালানো হয়েছে। কিন্তু মোয়াজ্জেমকে কোথাও পাওয়া যায়নি।

এর আগে, ২৭ মে পরোয়ানা জারির চারদিনের মাথায় ৩১ মে পরোয়ানার চিঠি ফেনীর পুলিশ সুপার কার্যালয়ে পৌঁছায়। তার আগেই ওসি মোয়াজ্জেমকে রংপুর রেঞ্জে সংযুক্ত করায় পরোয়ানার কপি ফেনী পুলিশের পক্ষ থেকে রংপুরে পাঠানো হয়।ওসি মোয়াজ্জেম রংপুরের কর্মস্থলে যোগ না দেওয়ায় রংপুর থেকে তার পরোয়ানা আবার ফেনীতে ফেরত আসে।

গ্রেফতারি পরোয়ানা বাস্তবায়নে গড়িমসি থাকার সুযোগে ওসি মোয়াজ্জেম গা ঢাকা দেয় এবং উচ্চ আদালতে আগাম জামিনের আবেদন করে। সে আবেদনের শুনানি এখনও হয়নি।

প্রসঙ্গত, ফেনীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে তার মা শিরিন আক্তার বাদী হয়ে ২৭ মার্চ, ২০১৯, সোনাগাজী থানায় সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ্দৌলার বিরুদ্ধে মামলা করেন। এরপর অধ্যক্ষকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের নামে নুসরাতের বক্তব্য ভিডিও করে ওসি মোয়াজ্জেম সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেয়। ভিডিও করে তা ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে ১৫ এপ্রিল, ২০১৯, ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালে একটি মামলা দায়ের করেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার সুমন। বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ ও মামলার নথি পর্যালোচনা করে ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ আসসামছ জগলুল হোসেন ২৭ মে ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির আদেশ দেন। তবে এরপরও তাকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। এমনকি মোয়াজ্জেম আত্মসমর্পণও করেনি।

বাঙালীয়ানা/এসএল

মন্তব্য করুন (Comments)

comments

Share.