আসামের নাগরিক নিবন্ধন ইস্যু নিয়ে উত্তেজিত হয়ে আছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গতকাল রাজ্য বিধানসভার নিজের কক্ষে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় কালে মমতা বলেন, ‘ইলিশ মাছ, জামদানি শাড়ি উদ্বাস্তু না অনুপ্রবেশকারী?’

আসাম ইস্যু নিয়ে নিয়ে বিজেপির অমিত শাহের সঙ্গে মমতার তিক্ততা বেড়েই চলছে। গতমাসে নাগরিকদের তালিকা প্রকাশের পরপরই তা বাতিলের দাবি তোলেন মমতা। বলেন, আসাম থেকে যে ৪০ লাখ মানুষের নাম বাদ দেওয়া হয়েছে, তার অধিকাংশই বাঙালি। এই সিদ্ধান্ত আমি কিছুতেই মেনে নিতে পারছিন না।

গতকালের ওই সংবাদ সম্মেলনে অমিত শাহের বাংলা বিরোধী ভূমিকা নিয়ে তীব্র কটাক্ষ করে তিনি বলেন, ‘এত বাংলাবিদ্বেষী কেন, বিজেপি? এত ঘৃণা কেন? বাংলা ভাষায় কথা বলা অপরাধ নয়। ওরা বাংলায় এখন বিভাজন করতে চাইছে। মানুষে মানুষে ঘৃণা ও প্রতিহিংসার পরিবেশ তৈরি করতে চাইছে। আর এর চরম বিরোধী আমরা। আমরা ঘৃণায় বিশ্বাসী নই, শান্তিতে বিশ্বাসী।’

মমতা বলেন, ‘আজ এশিয়ার দ্বিতীয় ভাষা বাংলা আর পৃথিবীর পঞ্চম ভাষা এই বাংলা। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশ থেকে পশ্চিমবঙ্গে চলে আসা মানুষদের কেন আবার উদ্বাস্তু করা হবে? আমি তো এই উদ্বাস্তুদের জন্য লড়াই করেছি। এখনো করছি। বিজেপিতে এখন প্রতিহিংসার পরিবেশ তৈরি করেছে।’

মন্তব্য করুন (Comments)

comments

Share.