ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র মির্জা ফখরুল; সময় নিলেন কাদের সিদ্দিকী

Comments

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র করা হয়েছে। শনিবার, ৩ নভেম্বর, ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়।

এর আগে সন্ধ্যায় মতিঝিলে ড. কামাল হোসেনের চেম্বারে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতাদের বৈঠকটি শুরু হয়। এদিকে প্রথম দফার সংলাপে কোন সমাধান না আসায় আবারও বৈঠকে বসতে প্রধানমন্ত্রী বরাবর চিঠি পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ঐক্যফ্রন্ট।

বৈঠক শেষে মির্জা ফখরুল গণমাধ্যমকে বলেন, “আবার সংলাপ চেয়ে রোববার প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দেওয়া হবে। নির্বাচন কমিশনকে (ইসি) চিঠি দিয়ে সংলাপ শেষ না হওয়া পর্যন্ত জাতীয় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার তারিখ নির্ধারণ না করার অনুরোধ করা হয়েছে। এ কথাও প্রধানমন্ত্রীর কাছে লেখা চিঠিতে উল্লেখ থাকবে।” মির্জা ফখরুল আরও বলেন, তারা আশা করছেন, প্রধানমন্ত্রী তাদের চিঠিতে সাড়া দেবেন এবং এবারের বৈঠক স্বল্প পরিসরে হবে।

তাছাড়া, এদিকে ঐক্যফ্রন্টে যোগদানের ব্যাপারে একদিনের সময় চেয়েছেন কাদের সিদ্দিকী। একইদিনে রাজধানীতে সন্ধ্যায় এক আলোচনা সভায় কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি এই মন্তব্য করেন।

 

কাদের সিদ্দিকী

কাদের সিদ্দিকী

 

কাদের সিদ্দিকী বলেন, “আমি আজকে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে যোগদানের ঘোষণা দিয়েছিলাম, প্রেসকে বলেও দিয়েছিলাম। স্যার (ড. কামাল হোসেন) আমি আপনার কাছে আর একটা দিন সময় চাই, শুধু কালকের দিন সময় চাই। পরশুদিন আগামী ৫ তারিখ দলবদ্ধভাবে গিয়ে আপনাকে আপনার নেতৃবৃন্দের সামনে আমার অবস্থান জানিয়ে আসব। আমি স্পষ্ট করে বলতে চাই, আমি কখনো জনগণের মতের বিপক্ষে নই, কখনো যাইনি, আমি ভবিষ্যতেও যাব না। তবে একটা কথা বলছি, আপনাদের বিজয় হয়ে গেছে। যেদিন সরকার আলোচনায় বসেছে সেদিনই আপনাদের বিজয় হয়ে গেছে। আপনারা বিজয়ী। আপনাদের বিজয় আর কেউ ঠেকাতে পারবে না। স্যার আপনাকে আমি অভিনন্দন জানাচ্ছি। আজ শুধু ড. কামাল হোসেন, কামাল হোসেনই নন। আজকে তিনি ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা। আমি মনে করি বেসরকারিভাবে সমগ্র জাতির তিনি প্রধান এবং তিনি নেতা।”

 

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার, ১ নভেম্বর, গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে ক্ষমতাসীন দল ও জোটের নেতাদের সঙ্গে ড. কামালের নেতৃত্বে জাতীয় ‘ঐক্যফ্রন্ট’ সংলাপে বসে। ২ নভেম্বর, বদরুদ্দোজা চৌধুরীর নেতৃত্বাধীন যুক্তফ্রন্টের সঙ্গে সংলাপ হয়। বি চৌধুরীআজ রোববার, ৪ নভেম্বর, ১৪ দলের শরিকদের সঙ্গে এবং পরদিন সোমবার, ৫ নভেম্বর, এরশাদের জাতীয় পার্টির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী সংলাপে বসবেন। সংলাপ হতে পারে বাম গণতান্ত্রিক জোট ও ইসলামী ঐক্যজোটের সঙ্গেও।

বাঙালীয়ানা/জেএইচ

মন্তব্য করুন (Comments)

comments

Share.