পর্দা উঠল চলচ্চিত্র উৎসবের

Comments

‘নান্দনিক চলচ্চিত্র, মননশীল দর্শক, আলোকিত সমাজ’- শ্লোগান সামনে রেখে বৃহস্পতিবার, ১০ জানুয়ারী থেকে ১৮ জানুয়ারি ২০১৯ সপ্তদশ ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হলো। প্রতিবারের মতোই এবারের উৎসবেও এশিয়ান প্রতিযোগিতা বিভাগ, রেট্রোস্পেকটিভ বিভাগ, বাংলাদেশ প্যানারোমা, সিনেমা অফ দ্য ওয়ার্ল্ড, চিল্ড্রেন্স ফিল্ম, স্পিরিচুয়াল ফিল্মস, শর্ট অ্যান্ড ইন্ডিপেনডেন্ট ফিল্ম এবং উইমেন্স ফিল্ম সেকশনে ৭২টি দেশের দুইশত ১৮টি চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হবে, জানালেন উৎসব পরিচালক আহমেদ মুজতবা জামাল।

বৃহস্পতিবার, ১০ জানুয়ারী, ২০১৯, বিকেল ৪টায় দেশ-বিদেশের চলচ্চিত্রমোদীদের মনে মর্যাদার আসন করে নেয়া ঢাকা আন্তর্জাতিক উৎসবের সপ্তদশ আসরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট সাংস্কৃতি অনুরাগী ও সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত। তথ্য মন্ত্রণালয়ের মাননীয় সচিব জনাব আবদুল মালেক অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন উৎসবের প্রধান পৃষ্ঠপোষক ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জনাব শাহরিয়ার আলম এমপি।

উৎসব উদ্বোধন করে আবুল মাল আব্দুল মুহিত অসঙ্গতি দূর করে পরিশীলিত সমাজ বিনির্মাণে চলচ্চিত্রের গুরুত্ব তুলে ধরে বলেন, “চলচ্চিত্র অত্যন্ত শক্তিশালী মাধ্যম। তবে এটা খুব পুরানো না। সম্ভবত আশি বছরের মতো হয়েছে আমরা সবাক চলচ্চিত্র পেয়েছে। সেই সুযোগ কাজে লাগিয়ে প্রেক্ষাগৃহে বসে পৃথিবীর অজানা দেশকে চেনা, অজানা সভ্যতার সঙ্গে পরিচয় হওয়ার সুযোগ পাই।”

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সভাপতি পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম তার ভাষণে ভালো চলচ্চিত্র সমাজকে পরিবর্তন করে দিতে পারে বলে আশা প্রকাশ করেন এবং বলেন, “চলচ্চিত্রে মানুষের ব্যক্তিজীবনের আবেগ-অনুভূতির প্রতিফলন ঘটে; মানুষের ভালোবাসা, সুখ-দুঃখ, বিষণ্ণতা, ইর্ষা সবই চলচ্চিত্রের চরিত্রের মধ্যে দিয়ে উঠে আসে চলচ্চিত্রে। যার সমাজের ইতিবাচক পরিবর্তনে ভূমিকা রাখে।”

অন্যান্যদের মধ্যে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন উৎসব কমিটির কার্যনির্বাহী সদস্য ম হামিদ ও উৎসব পরিচালক আহমেদ মুজতবা জামাল।

উদ্বোধন অনুষ্ঠান শেষে প্রদর্শিত হয় তুরস্ক-জর্ডানের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত ‘দ্য গেস্ট’; চলচ্চিত্রটি পরিচালনা করেছেন তুরস্কের নির্মাতা আন্দাজ হাজানেদারগলু।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের শুরুতে আমন্ত্রিত অতিথিদের জন্য নৃত্য পরিবেশন করে ভাবনা নাট্যদল।

বাঙালীয়ানা/এসএল

মন্তব্য করুন (Comments)

comments

Share.