ফায়ারম্যান সোহেল রানাকে বাঁচানো গেল না

Comments
সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার, ৮ এপ্রিল, ২০১৯, বাংলাদেশ সময় ভোর ৪টা ১৭ মিনিটে রানার মৃত্যু হয়। এ নিয়ে এফ আর টাওয়ার অগ্নিকাণ্ডে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ২৭ জনে দাঁড়ালো।

উদ্ধার কাজে বড় স্বয়ংক্রিয় মই (ল্যাডার) করে আটকে পড়া ব্যক্তিদের নামাবার প্রক্রিয়ার যুক্ত থাকা কালে সোহেল রানা যে ল্যাডারে ছিলেন সে ল্যাডারে আটকে পড়াদের জায়গা করে দিতে সোহেল রানা ল্যাডারের সিঁড়ি বেয়ে নিচে নেমে আসবার সময় হঠাৎ করে সোহেল রানার পা মইয়ের ভেতরে আটকে গিয়ে ভেঙে যায়। একই সময়ে চাপ লেগে তার পেট ছিদ্র হয়ে যায়। ঘটনায় আহত রানাকে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তার দুটি সফল অস্ত্রোপচার সদ্মপন্ন হয় কিন্তু কার্বন মনোঅক্সাইডের বিষক্রিয়া ও ইনহেলেশন ইনজুরির কারণে সোহেলের অবস্থা শঙ্কামুক্ত না হওয়ায় সোহেল রানাকে নিবিড় পরিচর্যায় ভেন্টিলেশনে রাখা হয়।

বাঙালীয়ানা/এসএল

মন্তব্য করুন (Comments)

comments

Share.