বাংলা গান গাওয়ায় শান’কে হেনস্তা

Comments
আসামের রাজধানী গোহাটি’তে বাংলা গান গাওয়ার অপরাধে দর্শকদের হাতে হেনস্তার শিকার হয়েছেন বলিউডের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী শান। ২৯ অক্টোবর, রবিবার রাতে গোহাটি’র সরুসাজাই স্টেডিয়ামে শানের পারফর্মেন্সের সময় শ্রোতাদের মধ্যে থেকে কেউ বা কারা শানের উদ্দেশে কাগজের বল ছুঁড়ে মারেন। এই ঘটনায় সোশাল মিডিয়ায় নিজের ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন গায়ক।

বলিউডের নন্দিত এই সঙ্গীতশিল্পী আসামের গোহাটি’র সারুসাজাই স্টেডিয়ামে একটি আয়োজক সংস্থার আমন্ত্রণে সেখানে পারফর্ম করেন। গান গাওয়ার একপর্যায়ে দর্শক সারি থেকে কাগজের বল উড়ে আসে গায়কের দিকে। সেই ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। সেখানে দর্শকদের একাংশ থেকে বিরুপ মন্তব্য আসতে শোনা যায়, ‘এটা অাসাম, বাংলা নয়।’ সঙ্গে উড়ে আসে কাগজের বল।

শান রেগে গিয়ে গান থামিয়ে দেন ও নিরাপত্তার দায়িত্বে লোককে বলেন, “যিনি এই কাজ করেছেন, তাকে দর্শক আসন থেকে তাকে তুলে স্টেজে নিয়ে আসতে।”

মাইক্রোফোনে শান বলেন, “ওকে স্টেজে নিয়ে আসুন। তিনি যেই হোন, কোনও শিল্পীর ওপর এভাবে কিছু ছুঁড়বেন না। শিল্পীকে সম্মান করতে শিখুন।”

তিনি আরও বলেন, “আমার অসম্ভব জ্বর, অ্যান্টিবায়োটিকস চলছে। আপনাদের জন্য সারা রাত পারর্ফম করছি, তার জন্য যদি এই প্রতিদান পেতে হয় এবং এইধরনের মানুষজন যদি থাকেন, তাহলে আমি পারর্ফম করতে ইচ্ছুক নই।”

প্রথমে শান ওই দর্শককে ধরে আনার কথা বললেও, পরে অনুষ্ঠান বন্ধ করে স্টেজ থেকে নেমে যান। তিনি দর্শকদের বলেন যে, একজন শিল্পীর সঙ্গে এরকম করা উচিত নয়। এটাকে রাজনীতির সঙ্গে জড়িয়ে ফেলা মোটেও উচিত নয়। দর্শকদের এরকম উদ্ভট আচরণের ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি মঞ্চের পেছনে চলে আসেন। পরে সংগঠকদের অনুরোধে আবার স্টেজে ফিরে পুনরায় গান গাইতে শুরু করেন শান।

সোশাল মিডিয়ায় এই ঘটনা বড় আকার নেয়। অনেকে বলেন বাংলা গান গাওয়ার জন্যই হেনস্তা হতে হয় শিল্পীকে। আসামে গিয়ে বাংলা গান গাওয়ায় শ্রোতারা হতাশ হয়েছেন।

বাঙ্গালোয়ানা/টিএইচ/জেএইচ

মন্তব্য করুন (Comments)

comments

Share.