মালয়েশিয়ায় কর্মী নিয়োগের নতুন প্রক্রিয়া আসছে

Comments

 

মালয়েশিয়ায় কর্মী নিয়োগের নতুন প্রক্রিয়া ঠিক করতে ২৫ অক্টোবর, ২০১৮ তারিখে কুয়ালালামপুরে বৈঠক করবে বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়া। বৈঠকে দুই দেশের নেতৃত্ব দেবেন প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী নুরুল ইসলাম এবং মালয়েশিয়ার মানবসম্পদমন্ত্রী কুলা সেগারান।

বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ তারিখে পররাষ্ট্র এবং প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা এসব নিশ্চিত করেন। মালয়েশিয়া ও বাংলাদেশের জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপের (জেডব্লিউজি) আগামী বৈঠকের আলোচ্যসূচিতে কর্মী নিয়োগের নতুন প্রক্রিয়া ঠিক করার বিষয়টি উল্লেখ রয়েছে। জি টু জি প্লাস নামের (বেসরকারি জনশক্তি রপ্তানিকারক সংগঠনকে যুক্ত করে সরকারি ব্যবস্থাপনা) প্রক্রিয়ার মাধ্যমে এত দিন মালয়েশিয়ায় কর্মী পাঠানো হতো। ১ সেপ্টেম্বর থেকে কর্মী নিয়োগের এই প্রক্রিয়া বাতিল করে মালয়েশিয়া সরকার। একতরফা এবং অনৈতিকভাবে বাংলাদেশের ১০টি রিক্রুটিং এজেন্সি (জনশক্তি রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান) কর্মী পাঠানোর বিষয়টি নিয়ন্ত্রণ করার অভিযোগ ওঠার পর মালয়েশিয়া সরকার এমন সিদ্ধান্ত নেয়।

জি টু জি প্লাস নামের সর্বশেষ প্রক্রিয়া বাতিল হলেও ৩১ আগস্ট, ২০১৮ পর্যন্ত অনুমোদন পাওয়া বাংলাদেশী কর্মীদের নিয়োগ দেওয়ার কথা বলেছে মালয়েশিয়া। কিন্তু কিছুদিন ধরে বিশেষ করে ঢাকায় মালয়েশিয়া হাইকমিশন ৩১ আগস্টের মধ্যে অনুমোদন পাওয়া বাংলাদেশী কর্মীদের ভিসা দিচ্ছে না। মালয়েশিয়া হাইকমিশন ভিসা সত্যায়ন না করায় ১৫ হাজার বাংলাদেশী কাজের জন্য দেশটিতে যেতে পারছেন না।

বৈধ কাগজপত্র না থাকার কারণে মালয়েশিয়ায় আটক বাংলাদেশীদের নিয়ে জেডব্লিউজির বৈঠকে আলোচনা হবে বলে ঢাকা ও কুয়ালালামপুরের কূটনৈতিক সূত্রগুলো বলছে। আটক বাংলাদেশিদের দ্রুত ফিরিয়ে আনার বিষয়টি মালয়েশিয়া তুলতে পারে বলে ঢাকার কূটনীতিকেরা ধারণা করছেন।

বাঙালীয়ানা/এজে

মন্তব্য করুন (Comments)

comments

Share.

About Author

বাঙালীয়ানা স্টাফ করসপন্ডেন্ট