সাজ্জাদ সাঈফের কবিতা

Comments

ভাষার সি-বিচে

আমাকে কথার বিষে, কত লোক ধরাশায়ী করে!
কতদিন আগের দেয়াল, মোছে নাম, নরম রাবারে!
এত ওড়ে হাওড়-কুয়াশা, এতো ধুলা, স্মৃতির কবজ!
এতো হ্রেষা, থেমে থেমে মেঘ, কাছে ডাকে পানের বরজ!

তোমাকে কোথায় খুঁজি, পেয়ে গেছি কোথাও আবার;
ভিড় থেকে দূরের ভিটায়, গান বাঁধে সোলার প্যানেল-
তুমি এক মিথের চাবুক, আমি এক ধূসর গাধার
ছানি পড়া দু’চোখ আবার ধরণীতে হয়েছি নাজেল!

মিথ্যুক

গল্পের ভিতর হতে হাত নাড়ে মিথ্যা বলা লোকটি। তারপর ঘামতে শুরু করে পাঠক, এর বেশি ফ্যান্টাসি তাকে মানায়?

আমরা সন্তুষ্টি নিয়ে খুব ভালো ঘুমাচ্ছি, হাওয়া খাচ্ছি সিঁড়িতে হেলান দিয়ে আর ইতিহাস থেকে পতাকার দিকে ভেসে আসছে ফ্যাসিস্ট বাতাস, মুক্তি ও মনস্তাপ, শ্রমিক ও আভিজাত্যের মাঝে দাঁড়িয়ে যাচ্ছে উচ্চকণ্ঠ কলম।

গল্পের মানুষগুলি কি সহজে একে অন্যের ভাই খেলছে, বোন সাজছে, শূন্যতা ঢেকে রাখছে বুক আগলে;

আমরা সবকিছু আড়চোখে দেখি, সবাইকে খোলামনে সন্দেহ করি; আর যারা কিছু গাছপালা আঁকতে শিখেছি যারা কিছু শহীদের উঁচানো হাত আঁকা শিখেছি শৈশবে, জীবনভর সেই তারা শুধু বুকের ভিতরকার কলম আর আগুনের প্রজ্বলন ছাইচাপা দিতে দিতে গণভবনের দিকে কি সুন্দর মাথা নিচু করে হাঁটছি বাবা!

প্রেম

বৃষ্টিকে সামলে নিয়ে শিলা-নুড়ি কুড়ানোর দৃশ্যে
সারাদিন গল্পের গানেরা, ফিরে ফিরে পৃথিবীতে আসে;
যেন দূরে নদীটি সেজেছে, বাজ ডাকা সাঁতারু পোশাকে;
এত ঢেউ উথাল পাথাল, যেন কারা কান্না ঢাকে!

একবার মিথের দরোজা, খুলে দেখি বুকের ভিতরে
কতদিন আগের বাগিচা, ভরে আছে প্রেমের পাথরে;

দেবে গেছে আরক নগরী, তুষারঝড়ের ঠান্ডা হাওয়ায়;
পৃথিবী মহত্ত্ব চায়, রক্তাক্ত যুদ্ধকে চায়, প্রেম কার খাঁচায় লুকায়?

আমাদের প্রেম আছে তবু, আছে পরিণয়, আছে ভুলের মাশুল;  রক্তকণায় যেটুকু চাও, জ্বাল দেয়া আছে সবুজ শিমুল।

ধীর কুয়াশা

দুটি চেনা ফুল সমস্ত সুরভি নিয়ে পড়ে আছে ঘাসে,
এ-রকম চিঠি লিখেছিলে তুমি, সেইদিকে হৈচৈ কম;
সেইদিকে মালতীভোলানো চাঁদ, মহাকাশে টিকটক খেলে; 

স্মৃতির ওপর দেখো সর পড়ে আছে,
ঝড় সরে আসে বাগান লক্ষ করে! 

আমাদের যুগল হেমন্তে 
ঘুড়ি যায়, ঘুড়ি কাটা পড়ে,
পারাপার ধীর হয় কুয়াশার!

দেখা হবে

কানের ধার ঘেঁষে একটা ট্রেনকে চলে যেতে দিয়ে বলিষ্ঠ এই নগরী
টগরফুল বুকে নিয়ে রেল‌ওয়ে কলোনি জুড়ে সোচ্চার, 

এই মেঘনাদ ভরদুপুর হতে অদূরে কোথাও দেখা হয়ে যাবে আমাদের,
যেই গল্পে নাই কোনো হর্ন কিংবা যানজট, চারদিকে রোদ,
আল টপকানো হাওয়া, তিতির পাখিরা হাঁটে!

মনে হয় বেণীফুলে অলি কতকাল বসে আছে থির,
বারান্দাটব বসন্তে টগবগ; আমাদের কথা হবে তমা,
আমাদের ভাষা হবে দাড়ি-কমাহীন!

লেখক:
Sajjad Sayef
সাজ্জাদ সাঈফ, লেখক, অনুবাদক ও মনোরোগ চিকিৎসক। 

মন্তব্য করুন (Comments)

comments

Share.

About Author

বাঙালীয়ানা স্টাফ করসপন্ডেন্ট